রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১২:৪৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
Logo বাউফলে বিধবা নারীকে হয়রানি, আদালতে মামলা। Logo শারদীয় দুর্গাপূজার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন পল্লবী থানার ওসি পারভেজ ইসলাম। Logo বরগুনার আমতলী হতে র‌্যাবের হাতে একজন গাঁজা ব্যবসায়ী গ্রেফতার। Logo সুনামগঞ্জে সফল নারী উদ্যোক্তা সম্মাননা পেলেন তৃষ্ণা আক্তার রুশনা Logo রাঙ্গাবালীর চরমোন্তাজে ওয়াল্টন এক্সক্লুসিভ শোরুম উদ্বোধন Logo গলাচিপার উলানিয়া বন্দর বনিক সমিতির নবগঠিত কমিটির সাথে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত Logo কাতারে এসএম সাগরের জমজমাট মাদক ব্যবসা, ঝুঁকিতে অভিবাসন খাত Logo মুরাদনগরে জুমার খুৎবার আযানকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১, আহত ১৫ Logo বারদী ইউনিয়নের মাদ্রাসা এতিমখানা সহ বিভিন্ন অসহায়দের মাঝে লায়ন বাবুলের উদ্যোগে রান্না করা খাবার বিতরণ Logo রাঙ্গাবালীতে সমুদ্রগামী দরিদ্র জেলেদের মাঝে উন্নত জাতের হাঁস বিতরণ করা হয়েছে

নির্বাচনী প্রচারনায় বাধা দুমকির ইউএনওকে প্রত্যাহারের দাবি

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ / ১৩৬ বার পঠিত
সময় : শনিবার, ১৯ জুন, ২০২১, ৫:০৯ অপরাহ্ণ

নির্বাচনী প্রচারনায় বাঁধা প্রদান ও পক্ষপাতমূলক আচরনের অভিযোগ এনে পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তাকে প্রত্যাহারের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন মুরাদিয়া ইউপি নির্বাচনে আ’লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী মো: মিজানুর রহমান শিকদার। শুক্রবার (১৮ জুন) রাতে দুমকি প্রেসক্লাব মিলনায়তনে জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যের মাধ্যমে মিজানুর রহমান সিকদার সাংবাদিকদের জানান, গত শুক্রবার (১৮জুন) বিকেল সাড়ে ৫টায় উপজেলার মুরাদিয়া ইউনিয়নের বোর্ড অফিস বাজারে তাঁর পূর্বনির্ধারিত গণসংযোগ ও পথসভা চলাকালে ইউএনও শেখ আবদুল্লাহ সাদীদ অনাকাঙ্খিক ভাবে তাতে বাঁধা দেন। নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেয়া প্রায় দু’শতাধিক কর্মী-সমর্থক ও আ’লীগের নেতা-কর্মীদের পুলিশ দিয়ে অবরুদ্ধ করে প্রচারণা বাধাগ্রস্ত করে বিনা কারনে নৌকা মার্কার প্রচারণায় থাকা উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি মো: হুমায়ুন কবির মৃধাকে গ্রেফতার করে পুলিশ ভ্যানে ওঠান। তিনি আরও অভিযোগ করেন, আনারস মার্কার প্রার্থী নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন করে দুই ট্রাক (১১হাজার) আনারস ভোটারদের মাঝে বিতরণ করে। ইউএনও ও দুমকি থানা পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে আনারস দেখার পরও কোন ব্যবস্থা নেননি। গত ১৭জুন ৮নং ওয়ার্ডে নৌকা মার্কার নির্বাচনী অফিসের সামনে আনারসের কর্মীরা নির্বাচনী আচরণ লঙ্ঘণ করে উচ্ছৃঙ্খল উদ্যমনৃত্য, অশ্লীল শ্লোগান দিয়ে বিশৃৃঙ্খলা সৃষ্টি করলে পুলিশ তাদের কিছু না বলে উল্টো নৌকা সমর্থকদের ওপর লাঠিচার্জ করেছে। এর কয়েকদিন পূর্বে পুলিশের ওপেন হাউজ ডে’র নামে ৯নং ওয়ার্ডে আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীকে নিয়ে সভা করেন। প্রশাসনের এমন আচরণে ভোটারদের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে। এমতাবস্থায়, এমন পক্ষপাতমূলক আচরণের কারণে নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হওয়ার সম্ভাবনা নাই। তাই একটি অবাধ সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য ইউএনও শেখ আবদুল্লাহ সাদীদকে প্রত্যাহার দাবি করছি।
সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মো: ইউনুচ আলী মৃধা, কৃষকলীগের সভাপতি মো: হুমায়ুন কবির মৃধা, শ্রমিকলীগের সভাপতি খন্দকার মোশাররফ হোসেন, স্বেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক রবিউল আলম রনি, ছাত্রলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম জীবন, সাধারণ সম্পাদক সবুজ সিকদার, ইউনিয়ন আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ জাকির হোসেনসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এ বিষয়ে ইউএনও শেখ আবদুল্লাহ সাদীদ সাংবাদিকদের জানান, গণসংযোগের নামে গণমিছিল করায় বাঁধা দেয়া হয়েছে, পথসভায় বিঘœ হয়নি। আনারস প্রশ্নের জবাবে বলেন, ঘটনাস্থলে গিয়ে কোন আলামত পাওয়া যায়নি, দোকান বা গুদামজাত মালামালের জন্য কোন প্রার্থীকে দায়ি করা যায় না।

সংবাদটি শেয়ার করুন:
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও সংবাদ

ফেসবুকে আমরা

Theme Customized By Theme Park BD